ফেনিঃ বিশ বছর আগে স্বামীকে হারিয়েছেন মৃদুলাশাহা অনেক কষ্টে সন্তানদের বড়ও করেছেন । উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করেছেন । কিন্তু জীবনের পড়ন্ত বেলায় একে একে ছেড়ে গেছে  প্রতিষ্ঠিত পাঁচ ছেলে মেয়ে ।  চার বছর ধরে অসুস্থ মায়ের পাশে নেই তারা । গতকাল ছেলের ফোনে সত্তর উর্ধ বৃদ্ধার মৃত্যুর খবর শুনে প্রতিবেশীরা ঘরে ঢুকে দেখল ধুকে ধুকে বেচে আছে মা । মৃত্যু পথযাত্রী মাকে উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন প্রতিবেশীরা । যে বুকে পরম মমতায় আগলিয়ে ছেলে মেয়েদের বড় করেছেন সেখানে এখন একরাশ শূন্যতা । ঝাপসা চোখে হাজারো প্রশ্ন, না বলা কথা !

মা মারা গেছে কিন্তু সন্তানেরা আসছেন না । এমন অনুরোধে প্রতিবেশীরা যায় মায়ের মৃতদেহ আনতে । কিন্তু বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় বিপরীত দৃশ্য! মায়ের জীবনের শেষ নিঃশ্বাস টুকু ত্যাগ করার অভিমানের অশ্রু তখনো চোখ ভিজিয়ে গাল বেয়ে গড়িয়ে পড়ছে । তার পরেও প্রতিষ্ঠিত ছেলে মেয়েয়া কেউ দেখতে আসেনি । বড় দুই ছেলে উচ্চ ব্যাবসায়ী একছেলে বিসিএস ক্যাডার ও ছোট  দুই মেয়ে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখা পড়া শেষে গৃহিণী । সবাই আলাদা থাকায় মায়ের বাড়িতে সন্তানদের যাতায়াত নেই । তিন দিন না খাওয়া মা!   উচ্চ শিক্ষিত ও প্রতিষ্ঠিত পাঁচ ছেলেমেয়ের কাছে বিধবা মা এখন শুধুই বোঝা । ঘটনা যানাযানি হলে ছেলেমেয়েরা গা ঢাকা দিয়েছেন । অনেক খোজা খুজির পরে এক মেয়েকে পাওয়া গেলেও ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি হননি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *